Loading...
You are here:  Home  >  ওপেন ফোরাম  >  Current Article

আবার ট্রেনটা মিস করলেন দুই প্রধানের কর্তারা

By   /  February 13, 2017  /  No Comments

সোহম সেন

খেলায় হার–‌জিৎ আছে। এমনকি ড্রও আছে। তাই শিলিগুড়ির গোলশূন্য ম্যাচ নিয়ে অবাক হওয়ার কিছু নেই। কিন্তু আবার হেরে গেল দুই প্রধান। এক্ষেত্রে ফুটবলারদের নয়, দায়ী করব দুই ক্লাবের কর্তাদের। তাঁদের সামনে সুবর্ণ একটা সুযোগ এসেছিল। কিন্তু দু ক্লাবের কর্তারাই সেই সুযোগ হাতছাড়া করলেন।
যুব বিশ্বকাপের জন্য যুবভারতী পাওয়া যাবে না। ফলে, এবারের ডার্বির আয়োজন করা হয়েছিল শিলিগুড়ি কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে। এই মাঠটিকেই ঘরের মাঠ হিসেবে দেখিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল। আশপাশের এলাকা থেকে অনেকেই ম্যাচ দেখতে এলেন। মাঠে তেমন জায়গা নেই। ফলে, ভর্তি হতে সময় লাগল না। কলকাতা থেকেও গিয়েছিলেন অনেক সমর্থক। কেউ কেউ ম্যাচের একদিন আগেই পৌঁছে গিয়েছিলেন শিলিগুড়ি।

derby2
কিন্তু এই ব্যাপারটাই আরও সুন্দরভাবে হতে পারত। শিলিগুড়িতে যে ডার্বি হচ্ছে, তা প্রায় দু মাস আগেই ঠিক হয়ে গিয়েছিল। ধরা যাক, মোহনবাগান কর্তারা রেলদপ্তরের কাছে আর্জি রাখলেন, তাঁদের যেন একটা বিশেষ ট্রেন দেওয়া হয়। যা ভাড়া, ক্লাবের পক্ষ থেকে মিটিয়ে দেওয়া হবে। একইরকম আর্জি ইস্টবেঙ্গলের পক্ষ থেকেও জানানো যেতে পারত। রেলদপ্তর যদি বিশেষ ট্রেন বরাদ্দ নাও করত, দু মাস আগে থেকে অন্তত চার–‌পাঁচটি কামরা বুক করে নেওয়াই যেত। তারপর ক্লাবের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া যেতে পারত, যাঁরা যেতে চান, আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। টিকিটের ভাড়া নিয়ে ক্লাব তাঁদের হাতে টিকিট তুলে দিতে পারত। ভেবে দেখুন, পুরো ট্রেনে মোহনবাগানের সমর্থকরা যাচ্ছেন। কী দারুণ ব্যাপার হত। ইস্টবেঙ্গলের ক্ষেত্রেও এমনটা হতে পারত। বা যদি পাঁচটা কামরাও পাওয়া যেত, সেটাও দারুণ ব্যাপার হত। একটা ট্রেনের পাঁচটি কামরা মোহনবাগানের পতাকায় ঠাসা। অন্য ট্রেনের পাঁচটি কামরা ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের দখলে। ক্লাব যদি চাইত, আরও বেশি মানুষ যাক, তাহলে টিকিট না নিলেই হত। বলা যেতেই পারত, শিলিগুড়ি যেতে বা আসতে কোনও টিকিট লাগবে না। যাঁরা চান, যেতে পারেন। কতই বা খরচ হত?‌ যাওয়া–‌আসা মিলিয়ে বড়জোর ছয়–‌সাত লাখ। মোহনবাগান বা ইস্টবেঙ্গলের কাছে এটা কোনও অঙ্ক হল?‌ অনেকেই এই টাকা দিয়ে দিতেন। ক্লাবে এত প্রভাবশালী লোকদের কমিটিতে ঢোকানো হয়। চাইলে তাঁদের কাছে এই টাকা পাওয়া যেত না?‌ কোনও কোম্পানিকে বললে, তারাই হয়ত স্পন্সর করে দিত। রাজ্য সরকারকে বললে তারাও হয়ত দুটি বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করে দিত।

কিন্তু কর্তারা এই ট্রেনটাও মিস করলেন। নিজেরা বিমানে বাগডোগরা পৌঁছে গেলেন। কেউ গেলেন এ সি ফার্স্ট ক্লাসে। কিন্তু সদস্য–‌সমর্থকদের আবেগ ও অনুভূতিটা বোঝেনই না এই কর্তারা। গোয়ায় বা দিল্লিতে দুই প্রধান মুখোমুখি হলে হয়ত এই ব্যবস্থা করা মুশকিল। কিন্তু শিলিগুড়িতে অনায়াসেই করা যেত। অন্তত শিলিগুড়ি থেকে মহড়াটা শুরু হতে পারত।

SamsungTVs

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 2 =

You might also like...

radio3

না বোঝা সেই মহালয়া

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk