Loading...
You are here:  Home  >  নিয়মিত বিভাগ  >  খোলা চিঠি  >  Current Article

এটা কী করলেন নীতীশবাবু ?

By   /  November 30, 2015  /  No Comments

বিহারে মদ নিষিদ্ধ করতে চলেছেন নীতীশ কুমার। তেমন বিতর্কের ঝড় ওঠেনি। কিন্তু সবাই কি মেনে নিলেন ? মাতাল-রা কীভাবে দেখছেন এই ঘোষণাকে? একেবারে অন্য এক দৃষ্টিকোণ থেকে একটি লেখা। লিখেছেন প্রবাসী ইঞ্জিনিয়ার সব্যসাচী কুণ্ডু।

গত পরশু হাওড়া- গোয়ালিয়র চম্বল এক্সপ্রেসে ঝাঁসি ফিরছিলাম।তখন ভোর তিনটে পঞ্চাশ হবে, ঘুমটা হঠাৎ ভেঙে গেল। জানালার পর্দা সরিয়ে দেখলাম, ট্রেন সাসারাম স্টেশনে দাঁড়িয়ে। বাইরে এসে জানতে পারলাম কিছু যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য ট্রেন দাঁড়িয়ে আছে, আধঘণ্টা পরে ছাড়বে।
একটু চায়ের আশায় এদিক ওদিক চাইতেই হাতের কাছে একজন চাওয়ালাকে পেয়ে গেলাম। এক কাপ চা নিয়ে প্ল্যাটফর্মের বেঞ্চে বসলাম। খেয়াল করলাম আমার পাশে একটা কাগজের খাম পড়ে আছে। কৌতূহলবশত আমি সেই খামটা খুললাম। দেখলাম হিন্দিতে লেখা একটা চিঠি। হাতের লেখাটা একটু অস্পষ্ট হলেও বেশ পড়া যায়। চিঠিটা এখানে তুলে ধরছি। পাঠকের পড়ার সুবিধার্থে বাংলায় অনুবাদ করে দিচ্ছি।

sasaram station
“আদরণীয় নীতীশবাবু,
আমি শ্রী যমুনালাল গুপ্তা, বাড়ি রেলফটক, সাসারাম। পত্রের প্রথমে আপনাকে আরও একবার বিহারের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার জন্য শুভকামনা জানাই। আমরা আজ চোদ্দপুরুষ ধরে বিহারের বাসিন্দা। কিন্তু কোনদিনও বিহার ছেড়ে অন্য কোথাও যাবার কথা ভাবিনি। কিন্তু আজ আমি বুকে একরাশ দুঃখ নিয়ে আপনার বিহার ছেড়ে চিরদিনের মতো চললাম। ওপরে যাওয়ার সময় প্রায় হয়ে এল। আর হয়তো বেশিদিন নেই কিন্তু যতদিন বাঁচবো, এই দিকে আর আসবো না। সারাটা জীবন শুধু দুঃখই পেয়ে গেলাম।
ভেবেছিলাম জীবনের শেষ লগ্নে এসে একটু আরাম করে থাকব, আপনার জন্য তাও হল না। প্রথমে আমার মা আমাকে একলা ফেলে চলে গেলেন। তারপর জীবন দিয়ে যাকে ভালবেসেছিলাম, সেও আমাকে ছেড়ে অন্য একজনকে বিয়ে করে চলে গেলো। দুঃখে-অভিমানে যখন আমি ওপরে যাবার কথা ভাবছি, তখন আমার জীবনে আবার প্রেম এল।

rail station
আমার প্রেমিকার নাম শুনবেন? সুরাদেবী! দুচার গ্লাস পেটে গেলেই সব দুঃখ যন্ত্রণা ভুলে যেতাম। একদিন বাবা বললেন, “ হয় মদ ছাড় না হোলে আমার বাড়ি ছাড়।” শেষে বাড়ি ছেড়েই চলে গেলাম। আজকাল তো ম্যট্রিক ফেল ছেলেরাও মন্ত্রী হয়ে যাচ্ছে। আমি ম্যাট্রিক পাশ করেও একটা চাপরাশির কাজ জোটাতে পারিনি । কিন্তু তাতে আমার কোনও আক্ষেপ নেই। টুকটাক কাজ করে যা রোজগার করতাম তাতে আমার বেশ চলে যেত। একদিন পতিতালয়ের এক নষ্ট মেয়ে আমার সাথে ঘর বাঁধতে রাজি হোল। কয়েক বছর বেশ সুখে সংসার করলাম।একটা ফুটফুটে বাচ্চাও হয়েছিল। কিন্তু সুখ হয়ত আমার কপালে লেখা নেই। একদিন ওপরওয়ালা কোনও রকম আগাম সংবাদ না দিয়ে ওদের নিজের কাছে ডেকে নিলেন।

alcohal

এই দুঃখের সময়ও আমার কাছে আপন বলতে ওই একজনই ছিল। তাই আমি সব কিছুকে ভুলে থাকতে সবসময় সুরাদেবীতে মগ্ন থাকতাম। জানেন, কয়েকদিন আগে যখন ভোট ভোট করে খুব হই চই হচ্ছিল, তখন এক ছোকরা এসে বলল যে, বিহারে নাকি নতুন সরকার হবে। বিহার খুব উন্নত হবে। রাস্তা হবে, স্কুল কলেজ হবে, কল কারখানা হবে, সব বেকার ছেলেরা চাকরি পাবে। তখন শুনে বেশ আনন্দ হচ্ছিল। কিন্তু যখন ছোকরাটা বলল এখানে মদ নিষিদ্ধ হয়ে যাবে, সব মদের ঠেক বন্ধ হয়ে যাবে, তখন রেগেমেগে ছোকরাটাকে গালিগালাজ করে তাড়িয়ে দিয়েছিলাম। ভগবানকে রোজ প্রার্থনা করতাম যেন আপনি জেতেন। আমার কথাই রইল , কিন্তু আপনি এটা কি করলেন? ক্ষমতায় এসে প্রথমেই মদ নিষিদ্ধ করে দিলেন? মানছি ভোটের আগে এই রকম কিছু একটা করার কথা বলেছিলেন। কিন্তু ভোটের আগে অনেক নেতাই তো কতো কিছু বলেন। সব কথা কি সবাই রাখে।আপনি না হয় ওদের পথেই হাঁটতেন। শুধু মেয়েদের কথাই ভাবলেন। মাতাল সমাজের কথা একবারও ভাবলেন না! তাছাড়া এই কাজটা যদি মোদি করতেন তাহলে আজ সব জায়গাই গেল গেল রব উঠে যেত। কিন্তু এখানে কেউ প্রতিবাদ করছে না। অন্তত আমার মতো দুঃখী লোকের কথা একটু ভাবতে পারতেন। তাহলে আমি আর কি নিয়ে বাঁচবো।
তাই আমি আপনাকে আর আমার বিহারকে আলবিদা জানিয়ে চিরদিনের মতো চললাম। প্রণাম।
ইতি-
আপনার শুভাকাঙ্ক্ষী
শ্রী যমুনালাল গুপ্তা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen + 1 =

You might also like...

amitabh2

কী ভেবেছিলেন, গুরুং খাদা পরিয়ে বরণ করবেন!‌

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk