Loading...
You are here:  Home  >  জেলার বার্তা  >  উত্তর বঙ্গ  >  Current Article

কেন সামনে আনতে হচ্ছে অশোক ভট্টাচার্যকে ?

By   /  March 7, 2015  /  No Comments

সুজন বিশ্বাস

শিলিগুড়িতে অশোক ভট্টাচার্য প্রার্থী হচ্ছেন, এটা শুনে অনেকেই অবাক হচ্ছেন। আমি একেবারেই হচ্ছি না। যাঁরা শিলিগুড়ির রাজনীতির একটু হলেও খোঁজ রাখেন, আশা করি, তাঁরাও অবাক হচ্ছেন না। কারণ, গত আড়াই তিন বছর ধরে এরকম একটা সম্ভাবনার কথা শোনা যাচ্ছিল।
প্রথম কথা, দলীয় কর্মীদের দাবি কতটা ছিল জানি না, অশোকবাবু নিজে তার থেকে অনেক বেশি উৎসাহিত ছিলেন। একসময় তিনি এই পুরসভার চেয়ারম্যান ছিলেন। দীর্ঘ কুড়ি বছর এলাকার বিধায়ক ও রাজ্যের পুরমন্ত্রী ছিলেন। কোনও সন্দেহ নেই, উন্নয়নের ক্ষেত্রে তাঁর বিরাট বড় ভূমিকা আছে। তাঁর বিরোধীরাও একথা স্বীকার করেন।

ashoke bhattacharjee3

কিন্তু সিপিএম অশোকবাবুকে সামনে রাখতে চাইছে কেন ? একটি বা দুটি নয়, অনেকগুলো কারণ রয়ে গেছে। পাঁচ বছর আগের নির্বাচনে কংগ্রেস ছিল সবথেকে বড় দল। তাই তাদের একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাবে না। তবে তার থেকেও বড় ফ্যাক্টর হতে চলেছে বিজেপি। বাম শিবিরের কতটা ভোট বিজেপি-র দিকে যাবে, সেটাই সবথেকে বড় দুশ্চিন্তার। অনেকে মনে করছেন, এই বিজেপি মুখী ভোটকে কিছুটা ঠেকাতেই অশোকবাবুকে সামনে রাখার কৌশল। পুরসভায় বিরোধী দলনেতা সিপিএমের নুরুল ইসলাম। অশোকবাবু না দাঁড়ালে সম্ভাব্য মেয়র পদপ্রার্থী হিসেবে তাঁর নামটাই বেশি করে ভেসে উঠত। সেক্ষেত্রে হিন্দু ভোটের বড় অংশ বিজেপি-র দিকে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। শিলিগুড়িতে সংখ্যালঘু ভোট খুব একটা ফ্যাক্টর নয়। তাই ঝুঁকি নিতে চায়নি দল।
দ্বিতীয়ত, শিলিগুড়িতে বিরাট অংশের অবাঙালিদের বসবাস। আর এই অবাঙালিদের কাছে অনেকটাই গ্রহণযোগ্য অশোক ভট্টাচার্য। অবাঙালি ঘনিষ্ঠতার জন্য নিন্দুকেরা তাঁকে, অশোক ডালমিয়া বা অশোক আগরওয়াল বলে থাকেন। অবাঙালিদের কাছে এখনও সিপিএমের মুখ বলতে অশোক ভট্টাচার্য।
তৃতীয়ত, সিপিএমের অনেক নেতাই নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছেন। কিন্তু তাঁদের তুলনায় অশোক ভট্টাচার্য এখনও যথেষ্ট সক্রিয়। রাস্তায় নেমে মিটিং, মিছিল, আন্দোলন, প্রেস মিট, সবমিলিয়ে দৈনন্দিন নানা কর্মসূচির মাঝেই আছেন। আক্রান্তদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন নিয়ম করে।
চতুর্থত, নতুন নেতারা সেভাবে উঠে আসছেন না। জীবেশ সরকার আছেন। পরিচ্ছন্ন ভাবমূর্তি। ভদ্রলোক হিসেবেই পরিচিত। তবে সংগঠনে যতটা পরিচিত, সাধারণ মানুষের কাছে ততখানি নন। নতুন নেতা বলতে শঙ্কর ঘোষ। কিন্তু তাঁকে সামনে রেখে এতবড় আসরে লড়ার মতো সময় আসেনি।

পঞ্চমত, দলের কর্মীদের মনোবল। অনেকটাই তলানিতে এসে ঠেকেছে। দল যে জিততে পারে, এই বিশ্বাসটাই যেন কর্মীদের মধ্যে নেই। নেতা ভাবছেন, কর্মী নেই। কর্মী ভাবছেন, নেতা নেই। সাধারণ মানুষ ভাবছেন, হয়ত কেউ নেই। এই অবস্থায় অশোকবাবুকে সামনে না রাখলে মনোবল আরও তলিয়ে যেত। কর্মীরা ভাবতেন, আর বোধ হয় কোনও আশাই নেই। আগেই হাল ছেড়ে দিতেন। অশোক ভট্টাচার্য প্রার্থী হওয়ায় অন্তত লড়াইয়ের আবহ তৈরি হয়েছে।

ষষ্ঠত, তৃণমূল মেয়র পদপ্রার্থী করছে গৌতম দেবকে। এই অবস্থায় সিপিএমকেও একজন হেভিওয়েট প্রার্থীই দিতে হত। বিধানসভায় শিলিগুড়ি থেকে দাঁড়ানোর ঝুঁকি নেননি গৌতম। চলে গিয়েছিলেন পাশের জেলা জলপাইগুড়ির ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি কেন্দ্রে। এবার অশোক-গৌতম দ্বৈরথ। গত পাঁচ বছরে পুরবোর্ডে কার্যত চলেছে অচলাবস্থা। আর এই অচলাবস্থার জন্য গৌতম দেবের দায়ও কম নয়। পদে পদে কংগ্রেসের মেয়রকে অপমান করেছেন। নানা রকম অসহযোগিতার অভিযোগও আছে। উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী হয়ে এমন কিছু করতে পারেননি, যার জন্য তাঁকে উন্নয়নের কান্ডারি বলা যায়। বরং ঝুড়ি ঝুড়ি প্রতিশ্রুতির পাঁচ ভাগও পূরণ করেছেন কিনা সন্দেহ।

সবমিলিয়ে লড়াইয়ের আবহ জমজমাট। এত কিছুর পরেও শিলিগুড়ি পুরসভায় সিপিএম জিতবে কিনা, তার কোনও নিশ্চয়তা নেই। তবে এই মুহূর্তে অশোকবাবুই যে সেরা বাজি, তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − seven =

You might also like...

shimultala2

শীতের ছোট্ট ছুটিতে শিমূলতলা

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk