Loading...
You are here:  Home  >  রাজনীতি  >  রাজ্য  >  Current Article

মোদি নিজেও জানেন না বাংলা সাহিত্যের কতবড় উপকার তিনি করলেন

By   /  November 22, 2016  /  No Comments

 

রবি কর

মাননীয় নরেন্দ্র মোদীজি,
বাংলা সাহিত্য আপনার কাছে চিরঋণী হয়ে থাকবে। পুরানো নোট বাতিল করার জন্য মা লক্ষ্মীর আশীর্বাদ আপনি পাবেন কিনা

জানি না, কিন্তু মা সরস্বতীর আশীর্বাদ আপনার মাথায় ফুলঝুরির মতো ঝরবে।
ভারতীয় নেতারা শুধু ক্ষমতা পেলে শান্ত হয় না। তারা একই সঙ্গে সাহিত্যিক হতে চান, শিল্পী হতে চান, বুদ্ধিজীবী হতে চান । আমাদের প্রথম প্রধানমন্ত্রী সাহিত্যিক, আপনার দলের প্রথম প্রধানমন্ত্রীও সাহিত্যিক। কিন্তু অন্য দোষগুণ যাই থাক সাহিত্য ব্যামো থেকে আপনি মুক্ত।
কিন্তু যিনি নিজে সাহিত্যিক নন, তিনি কি সাহিত্যের সেবা করতে পারেন না? অবশ্যই পারেন? যেমন আপনি পারলেন।
শ্রীকৃষ্ণকীর্তন লিখেছিলেন বড়ু চণ্ডীদাস। হারিয়ে যাওয়া সেই পুথি একটি গোয়ালের ভিতর থেকে খুঁজে পেয়েছিলেন বসন্তরঞ্জন

রায়। তাই বঙ্গ সাহিত্য বড়ু চণ্ডীদাসের সঙ্গে বসন্তরঞ্জনকেও স্মরণ করে। একইভাবে আগামী দিনের বাঙালি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আপনাকেও স্মরণ করবে।
শ্রীকৃষ্ণকীর্তন পুঁথিটি যেমন দীর্ঘদিনের জন্য হারিয়ে গেছিল, মমতাদেবীর কাব্যপ্রতিভাও দীর্ঘদিনের জন্য হারিয়ে গেছিল। বহুদিন তিনি নতুন কিছু লেখেননি। নারদা- উড়ালপুল- গোমাংস- কানহাইয়া কুমার- উরি- পাঠানকোট- সার্জিকাল স্ট্রাইক- ঘটনার পর ঘটনা, কিন্তু দিদির কলম চুপ। আমরা তো ভয়ে মরি! বাঙলার এমন প্রতিভা কি অকালে শেষ হয়ে যাবে?
অবশেষে আপনি মাঠে নামলেন। নজরুল লিখেছেন, “তুমি আঘাত দিয়ে ফুল ঝরালে।“ আপনিও নোট বাতিলের আঘাত দিয়ে দিদির কলম থেকে কবিতার ফুল ঝরিয়ে দিলেন। আঘাত বলে আঘাত। যে দিদি বিধানসভা ভোটে বিপুল জয়ের পরেও কবিতা লেখেননি, কালো টাকার আঘাতে তিনি এক লপতে দুটো কবিতা লিখে ফেললেন।
১১ নভেম্বর প্রথম কবিতায় লিখলেন,
সতীত্বের শ্বেতপদ্ম দেখিয়ে
সর্বস্বান্ত করলে যাদের আগামী দিনে প্রস্তুত থাকো
তিন তালাক পাবে তাদের।
আপনাদের যাদের ছেলেমেয়েরা নিচু ক্লাসে পড়ে, তারা প্রস্তুত থাকুন এই কবিতার ব্যাখ্যা মাধ্যমিকে আসবেই। তবু সামগ্রিক

বিচারে এই কবিতায় কীসের যেন অভাব ছিল। আগের কবিতার মানকে ঠিক ছুঁতে পারছিল না। অভাব দূর করতে আবার আপনি এগিয়ে এলেন।

20_nov
নিষ্ঠুর ব্যাধ পাখিকে হত্যা করছে দেখে বাল্মিকির মনে কাব্য এসেছিল। আপনিও প্রাণপ্রিয় চিট ফান্ডের দিকে তির তুলেছেন দেখেই দিদির মনে কাব্য এল। ২০ নভেম্বর। এ কবিতার সর্বাঙ্গে আগুন, এ কবিতা জ্বলন্ত অঙ্গার। এ কবিতার আগুনে মোদী কেন তামাম দুনিয়া ছাই হয়ে যেতে পারে। এ কবিতা উর্দুতে অনুবাদ করে কাশ্মীরে ফেলুন, সব জঙ্গি পাকিস্তানে পালাবে। চীনা ভাষায় অনুবাদ করে অরুণাচলে বাজান, লাল ফৌজ জীবনে এ তল্লাটে পা বাড়াবে না।
এ কবিতা পুরো লেখার ক্ষমতা অ্যামার নেই। ছবি দিচ্ছি পড়ে নিন। মোদীজি আপনিও পড়ুন। আর এই কবিতাকে কাজে লাগান।
নোট বাতিলের মতো হঠকারী সিদ্ধান্ত না নিয়ে এই কবিতা মেল করে পাঠান তাদের, যাদের কাছে কালো টাকা আছে। দিদিকে রোজ একটু করে আঘাত করুন। দিদি কবিতা লিখুন। আর আপনি কালো টাকার কারবারিদের সেই কবিতা পাঠান। পাঠাতেই থাকুন যতদিন না তারা দোষ কবুল করে।

 

খুচরো সমস্যা? পর পর তিনদিন বিশেষ অফার দিচ্ছে পে টিএম। ক্লিক করুন। পছন্দমতো জিনিস কিনুন।

খুচরো সমস্যা? পর পর তিনদিন বিশেষ অফার দিচ্ছে পে টিএম। ক্লিক করুন। পছন্দমতো জিনিস কিনুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − 15 =

You might also like...

taxi

হাওড়া স্টেশন নিয়ে প্রশাসনের হেলদোল নেই

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk