Loading...
You are here:  Home  >  কলকাতা  >  Current Article

লম্বা ছুটি! আর কত নিচে নামবেন নগরপাল!

By   /  May 25, 2015  /  No Comments

স্বরূপ গোস্বামী

কাউকে বাঁচাতে অনেক সময় সত্য আড়াল করতে হয়। তাই বলে এমন নির্লজ্জ মিথ্যাচার! এই মিথ্যাচার করলেন কারা ? নিচুতলার কর্মীরা নয়, শীর্ষকর্তারা। যাঁর বিরুদ্ধে পুলিশকে আক্রমণ করার অভিযোগ, তাঁকে ডাকার সাহস হল না। উল্টে যিনি আক্রান্ত হলেন, সেই পুলিশ কর্মীকেই পাঠিয়ে দেওয়া হল ‘লম্বা ছুটি’তে। পুলিশ আধিকারিকদের দাবি, সেই পুলিশ কর্মী নাকি আগেই ছুটি চেয়েছিলেন।

এমন নির্লজ্জ মিথ্যার আশ্রয় নিতে হল কলকাতা পুলিশের কর্তাদের! এরপরেও বলা যাবে, তাঁদের মেরুদন্ড আছে !

কয়েক মাস আগের কথা। লেকটাউনে এক ট্রাফিক কনস্টেবলকে চড় মারলেন এক সাংসদ। অনেকেই দেখলেন। আক্রান্ত সেই কর্মী অভিযোগ করলেন। সেই সাংসদকে ডেকে পাঠানোর বদলে আক্রান্ত সেই পুলিশকর্মীকেই ‘পাগল’ সাজানোর চেষ্টা হল। কেন তিনি অভিযোগ করলেন, বারবার তাকেই চাপ দেওয়া হল। এখন যথারীতি সেই ঘটনা হিমঘরে পাঠিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

police2

একই ঘটনা ঘটল সোমবার। শুক্রবার রাতে মত্ত অবস্থায় গাড়ি চালাচ্ছিলেন মেয়রের ভাইজি। ধাক্কা মারলেন পথচারিকে। রাস্তায় বচসায় জড়িয়ে পড়লেন মেয়রের ভাইজি ও তাঁর বন্ধুরা। পুলিশ এগিয়ে এলে, তাঁকে শাসানো হল। গালিগালাজ করা হল। অভিযোগ, গায়েও হাত তোলা হয়। থানায় এসে ছাড়িয়ে নিয়ে গেলেন এক ‘প্রভাবশালী কাউন্সিলর’। ঘটনাটি জানাজানি হতে সময় লাগল না।

এটা নিছক কোনও অভিযোগ নয়। রাস্তায় সবার সামনেই এই ঘটনা ঘটেছে। মত্ত অবস্থায় গাড়ি চালানো থেকে শুরু করে, পুলিশকে গালাগাল, শাসানি, মারধর- সবই হয়েছে বাকিদের উপস্থিতিতেই। বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মীও এই ঘটনার সাক্ষী। এমনকি কলকাতা পুরসভার যে পদাধিকারী ছাড়িয়ে নিয়ে গেলেন, তাও থানার কর্মীদের সামনেই।

নিচুতলার কর্মীদের ক্ষোভও ছিল। গতকাল ঘুরে গেলেন ডিসি ট্রাফিক। সব শোনার পরেও, আক্রান্ত কর্মীর পাশে দাঁড়ানো নয়, কী করে ধামাচাপা দেওয়া যায়, সেই কাজটাই করতে হল। সোমবার থেকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না সেই কনস্টেবল  চন্কেদন পাণ্ডে। তাঁর উপর নানাভাবে চাপ দেওয়া হচ্ছিল, তা রবিবার থেকেই বোঝা যাচ্ছিল। ধামাচাপা দেওয়া হবে, এমন ইঙ্গিতও আগেই পাওয়া গিয়েছিল। দু-তিনটি কাগজে এমন ইঙ্গিত ছিল। তারপর সোমবার থেকেই নিরুদ্দেশ সেই কনস্টেবল। নিশ্চিত থাকতে পারেন, আপাতত তাঁকে পাওয়া যাবে না। এমনকি তিনি যেন বাড়িতেও না থাকেন, সেটাও নিশ্চিত করবে কলকাতা পুলিশ। কোনওভাবেই তিনি যেন মুখ খুলে সরকারকে অস্বস্তিতে না ফেলেন, এমন হুমকি দেওয়া মোটেই অস্বাভাবিক নয়। তাই, আপাতত খুঁজে পাওয়া যাবে না সেই পুলিশ কর্মীকে।

বলা হল, ‘তিনি আগেই ছুটির আবেদন করেছিলেন, তাঁকে লম্বা ছুটি দেওয়া হয়েছে।’ এই ঘটনার পর এমন ব্যাখ্যা পাগলেও বিশ্বাস করবে ? মেয়রের ভাইজিকে বাঁচাতে চাইছেন, ভাল কথা। তাই বলে নিজেদের এমন ‘ডাঁহা মিথ্যেবাদী’ প্রমাণ করা কি খুব দরকার ছিল ? যদি ছুটি চেয়েও থাকেন, এই সময় তো তদন্তের কাজে তাঁকে আরও বেশি করে দরকার ছিল। ছুটি বাতিল হওয়ার কথা ছিল। কলকাতা পুলিশের কর্তারা এত সদয় হয়ে গেলেন !

কী দিনকাল পড়ল! যিনি মত্ত অবস্থায় লোককে ধাক্কা মেরে, পুলিশের সঙ্গে তর্ক করলেন, তিনি বহাল তবিয়তে রইলেন। আর যিনি আইন রক্ষা করতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন, তাঁকে পাঠিয়ে দেওয়া হল, ‘লম্বা ছুটি’তে।

police3

ভাবতে ভাল লাগছে, মেয়রের ভাইজি জানার পরেও অন্তত লিখিত অভিযোগটুকু করার সৎ সাহস দেখিয়েছিলেন সেই চন্দন পাণ্ডে। আর আই পি এস ডিগ্রিধারী আপনারা! সেই ঘটনা ধামাচাপা দিতে কী নির্লজ্জ চাটুকারিতাই না করে চলেছেন। এরপর সেই পুলিশকর্মী যখন আপনাদের ‘স্যার’ বলে সম্বোধন করবেন, একটুও লজ্জা হবে না! ওই কনস্টেবলের ‘স্যার’ হওয়ার কোনও যোগ্যতা আপনাদের আছে ?

সোমবারই আরও একটা ছবি দেখা গেল। নবান্নে মন্ত্রী  রচপাল সিংয়ের জুতোর ফিতে বেঁধে দিচ্ছেন এক পুলিশ কর্মী। অনেক ‘বুদ্ধিজীবী’কে দেখলাম, তাঁকে ধিক্কার জানাচ্ছেন। সেই কর্মীর আর দোষ কী ? তিনি যা শেখার, তাঁর উপরতলাকে দেখেই  শিখছেন। তিনি ফিতে বাঁধছেন, এই দৃশ্যটা ছবিতে দেখা যাচ্ছে।

আরও অনেকেই তো নানাভাবে ফিতে বাঁধছেন। তফাত শুধু একটাই, সেই ছবি অদৃশ্য, দেখা যায় না।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × two =

You might also like...

chalo lets go

অঞ্জনের একটা ছবিই চোখ খুলে দিল

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk