Loading...
You are here:  Home  >  জেলার বার্তা  >  উত্তর বঙ্গ  >  Current Article

সাইকেল ফিরিয়ে বীরাঙ্গনার সম্মান পাচ্ছে পারমিতা

By   /  November 9, 2015  /  No Comments

বেঙ্গল টাইমস প্রতিবেদন, কোচবিহারঃ তার বাড়ি থেকে স্কুল অনেক দূরে। খুব কম করে হলেও আড়াই কিলোমিটার। বাড়িতে কোনও সাইকেল নেই। ওই পথটা হেঁটেই যেতে হয়। রোদ আসে, বৃষ্টি আসে। একটা সাইকেল হলে মন্দ হত না।
হাতের মুঠোয় সাইকেল এসেও গিয়েছিল। তার বাকি সব বন্ধুরা দল বেঁধে গিয়েছিল সেই সাইকেল আনতে। বিরাট বড় মঞ্চ। মঞ্চ আলো করে মুখ্যমন্ত্রী ও মন্ত্রী, আমলারা। একে একে তুলে দেওয়া হল সাইকেলের চাবি। এমন মঞ্চে উঠতে, সাইকেল নিতে কার না ভাল লাগে! সেই সাইকেল চালিয়ে বাড়িতে ফেরার মজাটাই অন্যরকম। কিন্তু এই মেয়ে কিছুটা অন্য ধাতুতে গড়া। জানিয়ে দিল, অন্যরা নিচ্ছে নিক, আমি এই সাইকেল নেব না। হেঁটেই স্কুলে যাব।

cycle
নাম পারমিতা কার্যী। ডাকনাম বৃন্দা। আলিপুরদুয়ার সংলগ্ন মরিচবাড়ি গ্রামে। তপসিকাথা হাইস্কুলে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী। বাড়ির অবস্থা মোটেই ভাল নয়। দেওয়ালে পলেস্তারাও নেই। নেই শৌচাগার। বিলাসিতা বা স্বাচ্ছন্দের ন্যূনতম উপাদানটুকুও নেই। ‘দিন আনি দিন খাই’ স্লোগানটাই অভাবী সংসারের রোজনামচা।
একটা সাইকেল যখন একান্তই দরকার, সেই সাইকেল যখন অনেক কষ্ট লাঘব করে দেয়, তখন সেই সাইকেল ফিরিয়ে দিল কেন? শিখিয়ে দেওয়া রাজনৈতিক বিবৃতি নয়। কথাগুলো যেন ভেতর থেকে বেরিয়ে এল, ‘আমাদের বন্ধু পুষ্প। ওর মুখে কয়েকদিন আগে অ্যাসিড বাল্ব ছুঁড়ে মারা হয়েছে। কারা করেছে, সবাই জানে। কিন্তু পুলিশ তাদের ধরছে না। ওই ছেলেরা কাল আবার কোনও মেয়ের উপর হামলা করবে। ওরা জানে, পুলিশ ওদের কিছুই করবে না। ওদের যদি শাস্তি না হয়, তাহলে সাইকেল নিয়েই কী করব? সেই সাইকেল নিয়ে পুষ্পর সামনে দিয়ে স্কুলে যাব?’
পাশেই পঞ্চায়েত প্রধানের বাড়ি। একসময় সিপিএম করতেন। এখন জামা বদলে তৃণমূল। দলবদলের পুরস্কার হিসেবে তিনিই প্রধান। প্রধানের পাশের বাড়ির মেয়ে কিনা মুখ্যমন্ত্রীর সাইকেল ফিরিয়ে দিল! পারমিতা অবশ্য এতকিছু ভাবতে রাজি নয়, ‘কে কী পার্টি করে, তা নিয়ে আমার মাথাব্যথা নেই। আমার মনে হয়েছে, সাইকেল নেওয়া উচিত হবে না। তাই নিইনি। কে রাগ করবে, জানি না।’
ঢাকঢোল পিটিয়ে নয়, প্রেস ডেকে নয়, একেবারে নিজের মতো করে নিশব্দেই প্রতিবাদ করেছে মেয়েটি। ছড়িয়ে পড়েছে নিজের নিয়মে। আর ছড়িয়ে দিয়েছে সোশাল মিডিয়া। সোমবার তার বাড়িতে গিয়েছিলেন বিধায়ক নগেন্দ্রনাথ রায়, ছাত্র ব্লকের রাজ্য সম্পাদক সৌম্যদীপ সরকার ও শুভঙ্কর সরকার। লড়াকু মেয়ের হাতে তুলে দেওয়া হল বই। সৌম্যদীপের কথায়, ‘ওর এই লড়াকু মনোভাবকে কুর্নিশ জানাতে এলাম। সামান্য সরকারি দাক্ষিণ্যের জন্য বুদ্ধিজীবীরা যখন চূড়ান্ত হ্যাংলামি করছেন, তখন এই মেয়েটি দেখিয়ে দিল, কীভাবে প্রতিবাদ করতে হয়। প্রত্যন্ত গ্রামের মেয়ে হয়েও ও আজ সবার কাছে দৃষ্টান্ত।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine + 14 =

You might also like...

yeti abhijan

ইয়েতির চেয়ে ঢের ভাল ছিল মিশর রহস্য

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk