Loading...
You are here:  Home  >  খেলা  >  Current Article

সৌরভ, হস্তক্ষেপ কাকে বলে এবার বুঝছেন তো ?

By   /  January 7, 2016  /  No Comments

সরল বিশ্বাস
সেদিন নবান্নে বসেই ঠিক হয়ে গিয়েছিল, সিএবির সভাপতি কে হবেন।
বি্শ্বরূপ দে বা সুবীর গাঙ্গুলিদের বাধ্য হয়েই মেনে নিতে হয়েছিল সেই নির্দেশ। কোনও সন্দেহ নেই, সিএবি সভাপতি হওয়ার পক্ষে সবথেকে যোগ্য লোক ছিলেন আপনিই। কিন্তু আপনি সিএবি সভাপতি হবেন, এই ঘোষণা নবান্ন থেকে কেন হবে ? সিএবি-র বাকি সদস্যদের কোনও গুরুত্বই নেই ?
সেদিনই বোঝা গিয়েছিল, ভবিষ্যতে কী কী হতে চলেছে। সৌরভ, আপনি চান বা না চান, এই হস্তক্ষেপ আপনাকে মেনে নিতেই হবে। না নিয়ে উপায় নেই। গুলাম আলির জলসা তার সাম্প্রতিকতম উদাহরণ।

eden gardens

বোঝা গিয়েছিল, বাংলার নির্বাচক হতে চলেছে অরূপ ভট্টাচার্য। অরূপ একসময় রনজি খেলেছেন। বাঁ হাতি এই স্পিনার নির্বাচক হতেই পারতেন। কিন্তু সেই যোগ্যতায় নয়। তিনি নির্বাচক হলে, কারণ তিনি ববি হাকিমের শ্যালক।
উদাহরণ বাড়িয়ে লাভ নেই। সরাসরি গুলাম আলিতেই ঢোকা যাক। গুলাম আলি কলকাতায় অনুষ্ঠান করতে আসছেন, খুব ভাল কথা। সামনে বিধানসভা নির্বাচন। সংখ্যালঘু ভোট নিশ্চিত করার জন্য যা যা করার দরকার, মুখ্যমন্ত্রী তাই তাই করছেন। কখনও সিদ্দিকুল্লার সভায়, কখনও ত্বহা সিদ্দিকির সভায় চলে যাচ্ছেন। এবার তিনি মেতেছেন গুলাম আলিকে নিয়ে। গুলাম আলিকে আনার পেছনে সংস্কৃতিমনষ্কতা যত না জড়িয়ে আছে, তার থেকে ঢের বেশি জড়িয়ে আছে ভোট-রাজনীতি। আপনিও কিনা তাতে শরিক হয়ে গেলেন!
প্রথমে ঠিক ছিল, তিনি পার্ক সার্কাসে অনুষ্ঠান করবেন। কিন্তু বুধবার রাতে মুখ্যমন্ত্রীর হঠাৎ মনে হল, এই অনুষ্ঠান ইডেনে হলে কেমন হয়? কেমন আবার হয় ? মুখ্যমন্ত্রী চাইছেন, অতএব হবে।

sourav3
কদিন পরেই টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ হবে ইডেনে। আর তার দু মাস আগে কিনা সেই মাঠে এমন জলসা ! কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী চেয়েছেন। আপনি ‘না’ বলার কে ? এখানেই জগমোহন ডালমিয়ার সঙ্গে আপনার পার্থক্য। সেই নব্বই সালে একবার নেলশন ম্যান্ডেলার নাগরিক সংবর্ধনা। তারপর থেকে ইডেনকে আর অন্য কাউকে ব্যবহার করতে দেননি। ৯৬ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয়েছিল। তা নিয়ে অনেক বিতর্কও হয়েছিল। কিন্তু তারপর থেকে ইডেনকে সযত্নে রক্ষা করেছিলেন ডালমিয়া। সরকারি চাপ বা অনুরোধ ছিল না, এমন ভাবার কারণ নেই। কিন্তু তিনি ইডেনে জলসা করতে চাননি। এমনকি আইপিএলের অনুষ্ঠানও অন্য জায়গায় করেছেন। তবু ইডেনে জলসার মঞ্চ বানাননি।
আপনি ঠিক সেটাই করলেন। তাও আবার বিশ্বকাপের ঠিক আগে। একটা জলসায় মাঠের বিরাট ক্ষতি হয়ে যাবে, এমনটা নয়। কিন্তু প্রশ্ন মানসিকতার। প্রশ্ন ইডেনের ঐতিহ্যের। প্রশ্ন মেরুদন্ড সোজা রাখার।
পার্ক সার্কাসে যানজট হতে পারে, মেনে নিলাম। নেতাজি ইনডোরে হতে পারত। এই জাতীয় অনুষ্ঠানের আদর্শ জায়গা নেতাজি ইনডোর। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর মাথায় একবার ইডেন ঢুকে গেছে। অতএব, ওটা ইডেনেই হবে। টি টোয়েন্টির সূচি মুখ্যমন্ত্রী না জানতেই পারেন, ইডেনে জলসা না হওয়ার ঐতিহ্য মুখ্যমন্ত্রী না বুঝতেই পারেন। বিনীতভাবে একটু বুঝিয়ে দেওয়া যেত না ? অন্যদের মতামত নেওয়া জরুরি, অন্তত এটুকুও তো বলতে পারতেন । এরপর কোনদিন তাঁর খেয়াল হবে, ইডেনের মাঠে যদি মন্ত্রীসভার বৈঠক হয়, তাহলে কেমন হয় । কোনদিন ক্লাবের চেক বিলির অনুষ্ঠানও ইডেন থেকে হতে পারে। সেই রাস্তাটা আপনি খুলে দিলেন।
সৌরভ, এবার বুঝছেন তো হস্তক্ষেপ কাকে বলে। অপেক্ষা করুন, আরও অনেক আবদার আসবে। আপনাকে নতমস্তকে তা মেনেও নিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − five =

You might also like...

chalo lets go

অঞ্জনের একটা ছবিই চোখ খুলে দিল

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk