Loading...
You are here:  Home  >  অন্যান্য  >  আন্তর্জাতিক  >  Current Article

ভারতে সভ্যতা খুঁজে পেলেন না ?

By   /  October 18, 2016  /  No Comments

নন্দ ঘোষের কড়চা

(লম্বা ছুটি কাটিয়ে স্বমহিমায় নন্দ ঘোষ। এই কয়েকদিনের বিরতিতে কত লোকের নাম যে হিটলিস্টে জমা হয়েছে! কাকে ছেড়ে কাকে ধরবেন ? ঠিক করলেন ইতিহাস দিয়েই শুরু করবেন ? বেছে নিলেন রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায়কে। সঙ্গে বলিউডের এক নায়ক ও পরিচালক। কেন ? পড়লেই জানতে পারবেন।)

রোজ সকালে উঠে চা বিস্কুট খেয়েই লোকের দোষ খুঁজতে বসে যাই। জ্যান্ত, মরা কাউকে বাদ দিই না। কারুর না কারুর দোষ ঠিকই খুঁজে পাই। আজও পেয়েছি। অন্যান্য দিন তবু একজনের দোষ খুঁজে পাই। আজ পেয়েছি একসঙ্গে তিন-তিন জনের। রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায়, ঋত্বিক রোশন, আর আশুতোষ গোয়ারিকর।

rakhaldas2

প্রথমেই রাখালদাস। বর্ণ পরিচয়ে পড়েছেন, রাখালকে কেউ ভালবাসে না। এই রাখালকে এতদিন আমরা ভালবাসতাম। কিন্তু এখন থেকে আর কেউ ভালবাসব না। পৃথিবীতে এত প্রাচীন সভ্যতা আছে, তিনি খুঁজে খুঁজে মহেঞ্জোদাড়োর ধ্বংসাবশেষ আবিস্কার করলেন। আর করবি তো কর, পাকিস্তানেই আবিস্কার করলেন। কেন রে ? ভারতে জায়গা কম পড়েছিল ? ভারতে সভ্যতা কম পড়েছিল ? জানি, যারা দেশদ্রোহী, তারা বলবে, ‘ভারত তখনও ভাগ হয়নি।’ আরে, তখন ভাগ হয়নি, এখন তো হয়েছে। উরিতে জঙ্গি হানার জন্য যদি ১৯৫৮ সালের পাকিস্তানি সিনেমাকে ব্যান করা যায়, তাহলে হরপ্পা-মহেঞ্জোদাড়োকে ব্যান করা হবে না কেন ?

mahenjodaro3
হ্যাঁ, ব্যান করতে হবে। ইতিহাস থেকে সিলেবাস, সিন্ধু সভ্যতাকে মুছে ফেলতে হবে।অনুরাগ কাশ্যপের সিনেমায় যখন পাকিস্তানি অভিনেতা শুটিং করলেন, তখন কেউ বাধা দেয়নি। কারণ, তখন দু-দেশের সম্পর্ক এতটা খারাপ ছিল না। কিন্তু রিলিজ করার সময় সিনেমা বন্ধ। ঠিক তেমনি, রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায় যখন খোঁড়াখুড়ি করেছেন, তখন আমরা বাধা দিইনি। কিন্তু এখন বাধা দেব।

জানি, দেশদ্রোহীরা বলবে, ইতিহাসের আবার দেশ হয় নাকি ? আরে, আপদ। সে তো সিনেমা-সঙ্গীতেরও দেশ হয় না। আমরা তাতে বাধা দিচ্ছি না ? সুতরাং, ইতিহাসকেও বাধা দেব। সিলেবাসে অযোধ্যা, হস্তিনাপুর, উজ্জয়িনী এই সব নিয়ে যতখুশি প্রশ্ন থাকুক, নো সিন্ধু সভ্যতা।

এরপরের টার্গেট আশুতোষ গোয়ারিকার আর ঋত্বিক রোশন। সিনেমা বানানোর আর জিনিস পেলি না ? মহেঞ্জোদাড়ো ? শিবসেনা, রাজ ঠাকরে, অভিজিৎ- এদের চোখ এড়িয়ে গেছে। কিন্তু আমার চোখ এড়াতে পারবে না। পাকিস্তানের জায়গা নিয়ে ছবি ? তাও আবার পবিত্র বলিউডে বসে ! ক্ষমা চা, ভারত মাতার নামে ক্ষমা চা।

মহেঞ্জোদাড়ো সিনেমায় তুই কী দেখালি ? শহর ধ্বংস হওয়ার পর সেখানকার লোক গঙ্গা নামে এক নতুন নদীর তীরে বসতি স্থাপন করছে। পাকিস্তানের লোক গঙ্গা-তীরে আসছে ? এ তো অনুপ্রবেশ । সন্ত্রাস। সেই সন্ত্রাসকে তোরা গ্লোরিফাই করলি ? এরপরে তো কোনদিন পাকিস্তানের শিল্পীদের ভারতে কাজ করাকেও সমর্থন করবি। ধিক, তোদের ধিক।

এই পাপমোচনের একটাই উপায় আছে। অবিলম্বে একটা নতুন সিনেমা বানা। অ্যাকশন ফিল্ম। যেখানে দেখানো হবে ভারতে আসা পাকিস্তানি গায়ক, শিল্পী, অভিনেতা, খেলোয়াড়- সবাইকে তুমুল পেটানো হচ্ছে। হ্যাঁ, জঙ্গিদের হাতে তো বন্দুক থাকে। তাই ওদের মারা যাবে না। তাছাড়া, ওদের হাতের কাছে পাওয়াও যায় না। শিল্পীগুলোকে পাওয়া যায়। তাই ওদেরকেই মার। মার শালাদের। পাকিস্তানিদের ভারতে গাইতে আসা বের করে দেব।

(নন্দ ঘোষ একটি বর্ণময় চরিত্র। তার কাজই হল লোকের খুঁত ধরা। যাঁরা নিয়মিত নন্দ ঘোষের কড়চা পড়েন, তাঁরা জানেন। আপনিও হয়ে উঠতে পারেন নন্দ ঘোষ। আপনিও লিখতে পারেন এই কড়চা। কাকে নিয়ে লিখবেন ? আপনি নিজেই বেছে নিন। পাঠিয়ে দিন আমাদের ঠিকানায়। ই মেলঃ bengaltimes.in@gmail.com)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 − one =

You might also like...

radio3

না বোঝা সেই মহালয়া

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk