Loading...
You are here:  Home  >  ওপেন ফোরাম  >  Current Article

সময়মতো লোকাল ট্রেন চালান, বুলেট ট্রেনের স্বপ্ন পরে দেখবেন

By   /  August 2, 2017  /  No Comments

সুগত রায়মজুমদার
‌আমাদের রাজ্যে ট্রেনযাত্রীদের প্রধান সমস্যা লোকাল ট্রেনগুলিতে। দূরপাল্লার ট্রেনগুলির তো কোনও সময়ের ঠিক থাকে না। কোনও কোনও ট্রেন ১০–‌১২ ঘণ্টাও দেরিতে চলে বা ছাড়ে। এটাই শিয়ালদহ বিভাগের দস্তুর হয়ে দাঁড়িয়েছে। শোনা যায়, ট্রেনযাত্রীদের জন্য প্রতি বছর বাজেটে সুরক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু তা জনসাধারণের চোখে পড়ে না। দীর্ঘকাল যাবৎ বিশেষত শিয়ালদা ডিভিশনের যাত্রীরা চরম হয়রানির শিকার। রেল কর্তৃপক্ষ এটা বোঝারও চেষ্টা করেন বলে মনে হয় না। প্রথমত, রাত ৯টার পর বেশির ভাগ ট্রেন বেশ কিছুটা লেটে চলে। বিধাননগরে আপ ট্রেন চলে ১ ও ২ নম্বর প্ল্যাটফর্ম দিয়ে। রাত ৯টার পর প্রতিদিন ২ নম্বর দিয়ে দূরপাল্লার ট্রেনগুলি চলে। ফলে সব শাখার আপ লোকাল ট্রেনই চলে প্রধানত ১ নম্বর দিয়ে। এতে রোজই যাত্রীদের অত্যন্ত ভিড় ট্রেনে যেতে হয় প্রায় ঝুলন্ত অবস্থায়। যে কোনও সময় দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে। তা–‌ও রেল কর্তৃপক্ষের নজরে পড়ে না।

sealdah3

বিশেষ করে মেন লাইনের যত্রীরা এর প্রধান শিকার। দূরপাল্লার ট্রেনগুলি একটি লাইন দিয়ে যাওয়ায় মূলত একটি প্ল্যাটফর্ম দিয়েই সব লাইনের লোকাল ট্রেনগুলি চলে প্রতিদিন। এতে প্রতিদিন লোকাল ট্রেনগুলি চলাচলের অবস্থায় থাকে না। দুরূহ ব্যাপার হয়ে যায় যাত্রীদের। অনেক যাত্রীকে দেখা যায় ওই উপচে পড়া ভিড় ট্রেনে ঝুলন্ত অবস্থায় ছুটে ট্রেন ধরেন। ট্রেনযাত্রা তখন সাধ্যের বাইরে চলে যায়। বিশেষত প্রবীণদের ক্ষেত্রে। বনগাঁ, ডানকুনি ও মেন লাইনের লোকালগুলি একই লাইন দিয়ে যাওয়ায় প্রচণ্ড ভিড় হয়। দেখলে মনে হয়, ট্রেনগুলি থেকে যে কোনও সময় মানুষ পড়ে যেতে পারেন। বনগাঁ বিভাগে প্রায় বেশির ভাগ স্টেশনের নামে লোকাল ট্রেন আছে। এই কারণে বনগাঁ লাইনের অবস্থা তুলনামূআলকভাবে ভাল। ওই লাইনে অনেক রাত পর্যন্ত বারাসত লোকাল থাকে। তাও আবার ১২ বগি। এতে ভিড়ের সমস্যা কিছুটা মেটে। কিন্ত একই দূরত্বে অবস্থিত ব্যারাকপুর লোকাল শিয়ালদা থেকে ছাড়ে না। সেজন্য সন্ধের পর ট্রেনে ওঠার মতো অবস্থা থাকে না। এর ফলে রাতের দিকে মেইন লাইনে বেশির ভাগ ট্রেন, মূলত যেগুলি দূরপাল্লার— কৃষ্ণনগর, শান্তিপুর, রানাঘাট, গেদে, সেই ট্রেনগুলিই বেশি। এই ট্রেনগুলি ওঠার মতো অবস্থায় থাকে না। এতে আমার মতো প্রৌঢ় মানুষদের রোজ ৩–‌৪টি ট্রেন ছেড়ে কোনওরকমে ট্রেন ধরতে হয়। ট্রেনগুলিতে ঠিকমতো দাঁড়ানো যায় না। রেল কর্তৃপক্ষ এতে নজরও দেন না, মানুষের ক্ষোভেও কর্ণপাত করেন না।

sealdah2

এই অব্যবস্থার কী কোনও দিনই সুরাহা হবে না? কেন্দ্রে মন্ত্রীর পর মন্ত্রী পরিবর্তন হয়ে চলেছে। কিন্তু কেউ কোনও দিন লোকাল ট্রেনগুলি নিয়ে ভাবিত নন। সব মন্ত্রীই দূরপাল্লার কত বগি বাড়াতে হবে, সে নিয়ে আগ্রহী থাকেন। মেইন লাইনে খুব কম ১২ বগির ট্রেন চলে। অন্য যে কোনও রেল বিভাগে ১২ বগিই বেশি চলে। সে সব জায়গায় ট্রেনযাত্রীদের সমস্যা অনেক কম। রেলমন্ত্রীদের মধ্যে একমাত্র ব্যতিক্রম ছিলেন মমতা ব্যানার্জি। তিনি যখন রেলমন্ত্রী ছিলেন, তখন রেলে শৃঙ্খলা ছিল। তখন কী করে সময়মতো চলত ট্রেন?‌ অনেক সময় টেন অগ্রিম হাজির হত স্টেশনগুলিতে। এর পর বহু মন্ত্রী পরিবর্তন হয়েছে। তখন যদি ঠিকমতো চলতে পারে, এখন কেন সম্ভব হচ্ছে না?‌ কেউ কিন্তু এই লোকাল ট্রেনের সমস্যা নিয়ে ভাবেননি। মমতার সময়ই বেশ কিছু ১২ বগি চালু হয়েছিল। প্ল্যাটফর্মগুলি বড় করা, প্ল্যাটফর্মগুলিতে লাইট দেওয়া, বসার বেঞ্চ দেওয়ার ব্যবস্থা করেছিলেন। ট্রেনের পরিষেবাও চলত সঠিকভাবে। ট্রেনের ফ্যান ও অন্য পরিষেবাও ঠিক ছিল। এখন বেশির ভাগ ট্রেনগুলি থাকে ভিড়ে ঠাসা। সঠিক পরিষেবাও নেই। ট্রেনের ভেতরে মানুষের নিঃশ্বাস–প্রশ্বাসের অভাবও দেখা দেয়। যাত্রীরা হাসফঁাস করেন। অনেক যাত্রী অসুস্থও হয়ে পড়েন। এই পরিষেবার অভাব নিত্যদিনের ব্যাপার। পরিষেবার কোনও উন্নতি নেই। কারও কোনও হেলদোল নেই। শিয়ালদা ডিভিশনের রেল কর্তৃপক্ষের কাছে ও রেলমন্ত্রীকে অনুরোধ, এবার একটু ভাবুন, ট্রেনযাত্রীদের সমস্যা নিয়ে। এটা কখনই কোনও সভ্য দেশে চলতে পারে না। জাপানে ১ মিনিট ট্রেন লেট হলে চালক এসে নিজে যাত্রীদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন। ইংল্যান্ডের মতো দেশে ১৫–‌৩০ মিনিট ট্রেন দেরি হলে টিকিটের পয়সা ফেরত দেওয়া হয়। সেজন্যই ওই উন্নত দেশগুলি বুলেট ট্রেন চালানোর সাহস দেখাতে পারে। যে দেশে মানুষ সামান্য সুস্থ পরিষেবাই পান না, সেই দেশের রেলমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রী বুলেট ট্রেন চালানোর স্বপ্ন দেখেন!‌ এই মিথ্যে প্রতিশ্রুতি আর কতদিন চলবে?‌ স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে দেশে। বাস্তবায়িত হওয়া অসম্ভব।

flipkart-sale-strip

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − thirteen =

You might also like...

mukul roy2

সবুজ সংকেত?‌ মুকুলকে এত বোকা মনে হয়!‌

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk