Loading...
You are here:  Home  >  সাহিত্য  >  গল্প  >  Current Article

ছোট গল্প

By   /  September 12, 2017  /  No Comments

দিনগত

প্রজ্ঞা পারমিতা রায়

দিনটা ছিল মেঘলা। ভরসা ছিল নিজের উপর। পাথরের মত কঠিন হয়ে উঠেছিল আকাশ। দিন কতক এইরকম চলছিল। বাড়িটা রাস্তার ধারে। মধ্যাহ্ন আজ বিষণ্ণ। বর্ষা শুরু হয়ে গেছে। পথ চলতি মানুষের ভিড় নগন্য। ক্ষণে ক্ষণে কেমন ঠান্ডা আমেজ বয়ে যাচ্ছে। বয়ে আনছে বৃষ্টির ঈশারা। দুচোখ বুজে আসছে অত্যন্ত ব্যথায়। তৃষিত প্রাণ পূর্বতন প্রাণরসের সঞ্চারে অতি গর্জিত কোনো প্রাতে শিশিরজল কান্না হয়ে বয়ে এনেছে দুরন্তপনা। বৃষ্টিপাত অঝোর ধারায় আপ্লাবিত। বেদনা মনে আনছে দুস্তর ব্যবধান। কল্লোলে বয়ে যাচ্ছে জলধারা।

আমার খুব তাড়া আজ, যেন মহাসমুদ্র পারাপার করে চলা। মা টেবিলঘড়ি মুছছিল। ভাই ঘুমোচ্ছে। মহাপাবকের মত ক্ষুধায় পরিশ্রান্ত আমি। তবুও কারও উপর ক্ষোভ নেই। যেতে হবে। তাড়াতাড়ি করে সবুজ সিল্কের কাপড় পরে, চশমা এটে, টিপ পরে, ব্যাগ নিয়ে তার মধ্যে চিঠিপত্তর আর পার্সটা নিয়ে, ওই বৃষ্টির মধ্যে বেরিয়ে পড়লাম, বাড়ির বাইরে মেঘ গর্জাচ্ছে, বর্ষা ছত্রছায়ায় নিজেকে প্রসারিত করে, অক্লান্ত বর্ষাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে নেমে পড়লাম, তারই সঙ্গে। সে আমায় বড় ভালবেসে জড়িয়ে ধরল। আমাকেও সে ভিজিয়ে দিয়ে আমার সঙ্গ নিল। আমি আপত্তি করলাম না, সেও শুনল না।
পথে সে প্রথমে আমার পা দুখানি, তারপর আমার শাড়িটি জড়িয়ে ধরল। আমি তাকে ছাড়িয়ে নিলাম না বা বাধা দিলাম না, একে একে সে আমার শরীর ছুঁয়ে রইল। আমি বাধা দিলাম না। বর্ষণরেখা নিরস্ত হওয়ার নয়। আকাশ কালো হয়ে রাত যেন, যেন সন্ধ্যা ঘনিয়ে এল। গুড়গুড় করতে লাগল। চারিদিকে সন্ধ্যার নিস্তব্ধতা ছড়িয়ে পড়ল। পথঘাট জলে ভেসে গেল। পড়ে রইল নিবিড় নিস্তব্ধতা একা যেন বড় একা।

post office

চারিদিক স্তব্ধ কলুষতা আক্রান্ত। পথে ঘাটে মানুষজন দাঁড়িয়েছে। আমার খুব তাড়া। অনেকদিন ধরে কাজটা পড়ে রয়েছে। আজ না হলেই নয়। গলিটা পেরিয়ে পড়ে অন্য গলি। পাশে ঘরবাড়ি তারপর পুকুরপাড় দিয়ে ঘেরা গাছের সারি। পুকুরপাড় জলে থৈথৈ। আমার মনে ছিল না ভয়। আমাকে আজ যেতেই হবে নিশ্চয়। পথ, বৃষ্টি আমার হাত ধরে এগিয়ে দিল। পথ জলে ভেসে যাচ্ছে। দিগন্তের ওই সৌরভ বৃষ্টি ভেজা মাটির গন্ধ আকুল করে তুলল দিনটা।

আমি কিছুদিন হল গল্পটা লিখেছি। ডা. শঙ্খ চক্রবর্তীর মুখটা ভেসে উঠছে। তিনি আমাকে যে অভয় দিয়েছেন তাতে আমি আপ্লুত। স্যারকে আমি খুব ভালবাসি। আমার ভালবাসা অব্যক্ত। আমার ভালবাসা ঈশ্বরীয় ভালবাসা, আমি জানতামই না। তিনি বলেছেন, আমাকে পৃথিবীর খুব দরকার। আমার ভালো মন নিয়ে দিয়ে সকলকে ভালো রাখা আমার দায়িত্ব। এ ভার আমাকেই নিতে হবে।
যাই হোক, তোমার ভালবাসা আমাকে পথ দেখিয়ে নিয়ে গেছে। সেই টানে আমার চোখের জল বৃষ্টি হয়ে ঝরে পড়ছে। পূর্ণতায় অবগাহন। জল থৈথৈ পথ বেয়ে পোষ্টাফিসের ঘর। সিঁড়িপথ দিয়ে সোজা উঠে গেলাম। স্পিডপোষ্ট করব। প্রথম কাউন্টারে স্পিড পোষ্ট করব। ঢুকতেই সোজা উঠেছি দেখি কুকুর শুয়ে। পথ করে ঘরে ঢুকলাম। লোকজন বেশি ছিল না, সব কাউন্টারে কাজ হচ্ছিল। শুধু স্পিড পোষ্ট হল না, লিঙ্ক নেই। আমার খুব তাড়া ছিল। চারপাশ থেকে লোকজন বলল, লিঙ্ক এলে হবে। আমার আর তর সইল না। জিজ্ঞেস করে নিলাম, কোথায় গেলে হবে? অন্য পোষ্ট অফিস। তাড়াতাড়ি মনস্থির করে নিলাম। প্রথমে ভাবলাম ট্রেনে যাব। ট্রেনে ভিড় তাই লাইন ক্রস করে টোটা নেবো ভাবলাম, গেল না। তাই বাসে উঠেছি। বাসকে বললাম পোষ্ট অফিস কোথায় আছে চলতি পথে। বাস বলল সেই টালা পোষ্ট অফিস। আমি বললাম, সে তো অনেক দূর। কাছাকাছি কিছু নেই। তা তো নেই। একটা ছিল কাছেপিঠে, সে তো উঠে গেছে। বাসে লোকজন কম। আমি বললাম বেলঘরিয়া পোষ্ট অফিস কেমন করে যায়? পাশের ভদ্রমহিলা বললেন, আপনি জিনিথে নেমে অটো ধরবেন, খুব তাড়াতাড়ি পৌঁছে যাবেন। আমি হাটা লাগালাম। কিছু দূর হাটার পর একটা টোটো পেলাম। টোটো বলল যাবেন? বলল দশ টাকা নেবে। উঠে পড়লাম। রাস্তায় কেউ বলল, পাগোল। বেলঘরিয়া পোষ্ট অফিসে নেমে পড়লাম। ধন্যবাদ দিয়ে অটো ছেড়ে দিলাম। দেখলাম তখনও পোষ্ট অফিস খোলা। কাজ শেষ করে, পথে নামলাম। একটা অটো ধরে রথতলা। বি টি রোড ক্রস করে অটো নিয়ে কামারহাটি, সেখান থেকে অটো নিয়ে বাড়ি ফিরলাম। পথে যা ঘটে কেউ মনে রাখেনি। পথ সকলের কাছে খামখেয়ালি। পথে না আছে সত্যি। সকলে পথ দিয়ে যাওয়া–‌আসা করে। তার খবর কে রাখে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty + fifteen =

You might also like...

sahitya

॥ বড় বাবু ॥

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk