Loading...
You are here:  Home  >  কলকাতা  >  Current Article

জটিল জটে মহাডার্বির ভবিষ্যৎ

By   /  September 2, 2016  /  No Comments

শান্তনু ব্যানার্জি
চলমান কলকাতা লিগে বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ছে না। লিগের ম্যাচ টেলিভিশনের পর্দায় সম্প্রচার হবে কি হবে না তা নিয়ে শুরু হয়েছিল বিতর্ক। এরপর গঙ্গা নদী দিয়ে সময়ের স্রোত বেয়ে জল অনেক দূর পর্যন্ত গড়িয়েছে। লিগ শুরু হওয়ার আগে থেকেই মোহনবাগান টিম গড়বো না গড়বো না করেও টিম তৈরি করে মাঠে নামলো।
এখানেই শেষ নয়। কলকাতা লিগে বল মাঠে গড়াতেই শুরু হয়ে গেল আরও একপ্রস্থ বিতর্ক। সবুজ মেরুন কর্তারা জানিয়ে দিলেন লিগে চ্যারিটি ম্যাচ খেলবে না। চললো এই নিয়ে টানাপোড়েন বাগান বনাম বঙ্গ ফুটবলের নিয়ামক সংস্থা আই এফ এর মধ্যে। এই দড়ি টানাটানির খেলায় লিগে হেক্সা জয়ী ইস্টবেঙ্গল জানিয়ে দিল ডার্বি ম্যাচ খেলা নিয়ে তাদের কোন আপত্তি নেই। আই এফ এর নির্দ্ধারিত দিনে তারা মাঠে ফুটবলারদের নিয়ে উপস্থিত থাকবে। তবু বাগান কর্তারা গো ধরেই বসে থাকলেন। অনেক আশা আশঙ্কার পর অবশেষে সূর্যোদয় ঘটলো। ২৫ শতাংশ টিকিট বিক্রি করতে পারার শর্তে মোহনবাগান রাজী হয়ে গেল ডার্বি ম্যাচ খেলতে।

derby2

মনে হয়েছিল চলতি কলকাতা লিগে বিতর্কের ঝড় থেমে গেল। ২৯ আগস্ট সোমবার বাগান মাঠে লিগের মোহনবাগান বনাম টালিগজ্ঞ অগ্রগামী ম্যাচ ছিল। আর ওই ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে ন্যায্য গোল বাতিলের মহা আবেগে গা ভাসিয়ে যেভাবে সবুজ মেরুন সমর্থকেরা মাঠে নেমে বীরদর্পে দাপিয়ে বেড়ালেন। আর তাতে করে ম্যাচটাই পরিত্যক্ত হয়ে গেল। আর এরই সঙ্গে জন্ম নিয়ে নিলো চলমান কলকাতা লিগে আরও এক অনিশ্চয়তা।
এই অনিশ্চয়তা থেকেই সূত্রপাত ঘটে গেল ডার্বি ম্যাচ ঘিরে বিতর্ক। বাগান বনাম টালিগঞ্জ ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার পরে বাগান কর্তারা বলে বসেন লিগ তারা খেলবে না। এরপর নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসে। আই এফ এ-কে জানিয়ে দেয় টালিগঞ্জ ম্যাচের রিপ্লে ম্যাচ দিতে হবে। এই নিয়ে শুরু হয়ে গেল ফের একপ্রস্থ চাপানউতোর। চলমান কলকাতা লিগে বারে বারে মোহনবাগান বনাম আই এফ এ মুখোমুখি সংঘাতে জড়িয়ে পড়তে দেখা গিয়েছে। এবারও হল তাই। মুখোমুখি সংঘাতে পড়ে শেষ পর্যন্ত আই এফ এ বাগানের রিপ্লে ম্যাচের দাবির কাছে মাথা নত করে দিল।

derby
কিন্তু সবুজ মেরুন কর্তারা বড্ড ছিঁচকাঁদুনে। ফের তারা আরও একটা গো ধরে বসলো। পরিত্যক্ত টালিগজ্ঞ ম্যাচ এক সপ্তাহের মধ্যে দিতে হবে এবং দুটি ম্যাচের মধ্যে তিন দিন ব্যবধান থাকতে হবে। প্রশ্ন উঠছে এই জায়গাতেই! লিগ শুরু হওয়ার আগে বাগান কর্তারা আই এফ এর কাছে নিজেদের বক্তব্য ঝেড়ে কাশেনি। লিগে বল যত গড়িয়েছে মোহনবাগান কর্তারা একটু একটু করে ঝুলি থেকে একটা একটা করে বিড়াল ছেড়ে দিয়েছে। আর বিতর্ক ততই দানা বাঁধতে শুরু করে দিয়েছে।
চলমান এই বিতর্কে ইস্টবেঙ্গল কর্মকর্তারা দূর থেকে নজরদারি চালিয়ে যাচ্ছিলেন। এবার তারাও আসরে নেমে পড়লেন। সবুজ মেরুন শিবিরকে রিপ্লে ম্যাচ এক সপ্তাহের মধ্যে দিতে হবে এই দাবিতে তারা অনড়। ওমনি লাল হলুদ কর্তারা জানিয়ে দিলেন নির্ধারিত ৭ সেপ্টেম্বর ডার্বি ম্যাচ না হলে তারা আর চলমান কলকাতা লিগে ম্যাচ খেলবে না।
ফলে বল এখন আই এফ এর কোর্টে। আই এফ এর এখন শিরে সংক্রান্তি অবস্থা! ঘরোয়া লিগ যেভাবেই হোক শেষ করতে হবে। ম্যাচ সম্প্রচারকারীদের এবং নিজেদের কোষাগারকে লাভের মুখ দেখাতে হবে। ১ অক্টোবর ইন্ডিয়ান সুপার লিগ শুরু হয়ে যাচ্ছে। ইস্ট মোহনের ফুটবলারেরা এখন আই এস এলের দিকে মুখিয়ে। বাগানের তারকা ফুটবলারেরা ইতিমধ্যেই আই এস এলের ফ্রাঞ্চইজি টিমের সঙ্গে রয়েছে। এরপর ইস্টবেঙ্গলের ফুটবলারেরাও এই এস এল টিমে যোগ দিতে চলে যাবে। তাই কলকাতা লিগকে দ্রুত শেষ করতে হবে। রথও দেখা হল, কলাও বেচা হল। এমনই এক জটিল অংকের সমাধান কষতে বসে গেছে রাজ্য ফুটবল সংস্থা দুঁদে আধিকারিকেরা । আর এই ডামাডোলের বিতর্কের মাঝে পড়ে কলকাতা লিগের নির্ধারিত ৭ সেপ্টেম্বরের ডার্বি ম্যাচ অনিশ্চিত হয়ে পড়ল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 + 2 =

You might also like...

radio3

না বোঝা সেই মহালয়া

Read More →
game of thrones season 7 episode 1 game of thrones season 7 watch online game of thrones season 7 live streaming game of thrones season 7 episode 1 voot voot apk uc news vidmate download flipkart flipkart flipkart apk cartoon hd cartoonhd cartoon hd apk cartoon hd download 9Apps 9Apps apk